ত্রিভুবনের ওপারে

by Saikat Mukherjee

নির্ভেজাল আকাশে, মৃদু শান্ত বাতাসে,
জগৎতনয়ার আবির্ভাবে, হয়েছে
প্রশান্ত পারাবার।
দিবাকরালোকে,অদৃশ্য তারাদের মাঝে,
বারিদহীন মুক্তাম্বরে দেখি তার
আলোর সমাহার।

গ্রহাণুকুলের অন্তরালে,কত যুগের
ধকল সয়ে ধ্রুব তার
মহিমা।
রুক্ষ,তার ধ্রুব শীতলতা,
প্রভঞ্জন বিনা মৃত বিগ্রহ দাঁড়িয়ে,সে
প্রথমা।

কত ঝড়ের সূত্রপাতে,আতঙ্কিত স্রষ্টা,
তার সৃষ্টির প্রতিপত্তিতে,
শোষিত অনর্গল।
তবু শত নিধন উপেক্ষা করে,
পরিক্রমণরত সে আজও
পরিমল।

ক্রমবর্দ্ধমান,ক্রমহ্রাসমান,
কৃষ্ণাম্বর অপেক্ষারত তার দ্যুতিচ্ছটা
শেষে।
মোহময়ী আর ধ্রুবতারা নয়,
মোহময় তার রৌপ্যলোক আজ
ধরিত্রী বেশে।

কৃতি ছিল তখনও, কৃতি আজও,
তাপহীন ধরা তো নশ্বর প্রতিভা,
সে যতই হোক শোষিত।
শশীর কলায় জলোচ্ছ্বাসে,নিয়মিত
আভাসে, আজ এই ধ্বংসাত্মক জগৎও
ভূষিত।।

Advertisements